Breaking News
Home / আরব আমিরাত / আরব আমিরাতে করোনায় স্ব’স্তি, উৎকণ্ঠায় বাংলাদেশিরা

আরব আমিরাতে করোনায় স্ব’স্তি, উৎকণ্ঠায় বাংলাদেশিরা

নিয়ন্ত্রণে আসতে শুরু করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের করোনা পরিস্থিতি। দেশটির ৭৫ ভাগ মানুষ টিকার আওতায় এসেছে। ভ্যা’কসিন নেওয়া পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে ভিজিট ভিসাও। এতে স্বস্তি ফিরলেও এখনও বাংলাদেশের সঙ্গে নিয়মিত বিমান চলাচল শুরু না হওয়ায় প্রবাসী বাংলাদে’শিরা দেশে আসতে পারছেন না।

পরিকল্পিত স্বাস্থ্যসেবা এবং স্বাস্থ্যবিধি মানার কারণে সংযুক্ত আরব আমিরাতের করোনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে। দেশ’টিতে এরই মধ্যে ৭৪ লাখের বেশি মানুষ টিকার আওতায় আসায় জনগণের মাঝে সংক্রমণ নিয়ে আতঙ্ক অনেকটা কমে এসেছে। সোমবার থেকে ভ্যাকসিন নেওয়া পর্যটক’দের জন্য খু’লে দেওয়া হয়েছে ভিজিট ভিসাও।

এদিকে করোনা নিয়ন্ত্রণে আসতে শুরু করলেও বাংলাদেশের সঙ্গে ফ্লাইট চলাচল স্বাভাবিক না হওয়ায় প্রবাসী বাংলাদে’শিদের মাঝে দিন দিন উৎকণ্ঠা বাড়ছে সংযুক্ত আরব আমিরাত এক্সপো ২০২০ কে সামনে রেখে।

সম্প্রতি র‌্যাপিড পিসিআর টেস্টের শর্তসাপেক্ষে বেশকিছু দেশের সঙ্গে ফ্লাইট যোগাযোগ পুনঃস্থাপন করলেও বাংলাদেশে আট’কেপড়া প্রবাসীদের ফিরে আসার ব্যাপারে কোনো ঘোষণা দেয়নি কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে বাংলাদেশের বিমানবন্দরে র‌্যাপিড পিসিআর টেস্ট ক্যাম্প বসানোর জোর দাবি জা’নিয়ে আসছেন প্রবাসীরা।

বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে র‌্যাপিড পিসিআর টেস্ট বসানোর কথা জানানো হলেও কবে না’গাদ তা বা’স্তবায়ন হবে তা নিয়ে উদ্বিগ্ন অবস্থায় রয়েছেন প্রবাসীরা। রেমিটেন্স যোদ্ধাদের দিকে তাকিয়ে সরকারকে উদ্যোগী হওয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা।

এর আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সিভিল অ্যাভিয়েশন এক ঘোষণায় বাংলাদেশসহ ১১ দেশের সঙ্গে শর্তসাপেক্ষে ফ্লাইট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার কথা জানায়। এতে কিছুটা স্বস্তি ফিরে পান প্রবাসীরা। কিন্তু বুধবার আরেকটি প্রজ্ঞাপনের বরাতে দেশটির প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস বাংলাদেশসহ সাতটি দেশকে শুধু ট্রানজিট সুবিধা দেয়ার খবর প্রকাশ করলে বিষয়টি নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়। প্রবাসী ও আটকেপড়া বাংলাদেশিদের মধ্যে তৈরি হয় অনিশ্চয়তা।

দ্বিতীয় প্রজ্ঞাপনে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া ১১ টি দেশের সঙ্গে ১টি দেশকে সংযুক্ত করে মোট ৬টি করে ১২টি দেশকে দুই ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়। প্রথম ক্যাটাগরিতে ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, শ্রীলংকা, নাইজেরিয়া, উগান্ডার যাত্রীদের শর্তসাপেক্ষে আমিরাতে প্রবেশের সু’যোগ দেওয়া হয়েছে।

দ্বিতীয় ক্যা’টাগরিতে আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ভিয়েতনাম, জাম্বিয়ার যাত্রীদের শুধু ট্রানজিট সুবিধার কথা বলা হয়। এ অবস্থায় বাংলাদেশে আটকেপড়া প্রবাসীদের সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবেশের পথ সুগম করার জন্য কূটনীতিক মিশনগুলোকে তৎপর হওয়ার আহ্বান জানান প্রবাসীরা।

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে এ বছর মে মাসের ১০ তারিখে বাংলাদেশ থেকে যাত্রী ও যাত্রীবাহী বিমান প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয় সংযুক্ত আরব আমিরাত। পরে কয়েক দফায় এই নিষেধাজ্ঞা আরও বাড়ানো হয়।

About ja

Check Also

আগামী তিন-চার দিনের মধ্যে বিমানবন্দরে আরটি–পিসিআর ল্যাব: প্রবাসী মন্ত্রণালয়

আগামী তিন-চার দিনের মধ্যে বিমানবন্দরে প্রবাসীদের জন্য করোনার নমুনা পরীক্ষার আরটি–পিসিআর ল্যাব চালু হবে বলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: